সংসদে প্রধানমন্ত্রী ,প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার ১৪.১৫%

45

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়ার হার ৪৭ দশমিক ২০ শতাংশ থেকে বর্তমানে ১৪ দশমিক ১৫ শতাংশে নেমে এসেছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Advertisement
spot_img

বুধবার (২১ জুন) এমপি খালেদা খানমের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রী জানান, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার ৭৭ শতাংশ থেকে বেড়ে ৮৮ দশমিক ৬০ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গমনোপযোগী শিশুদের ভর্তির হার ৮৭ দশমিক ২০ শতাংশ থেকে বেড়ে ৯৭ দশমিক ৫৯ শতাংশ হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষা চক্র সমাপ্তির হার ৫২ দশমিক ৮০ শতাংশ থেকে বেড়ে ৯৫ দশমিক ৫০ শতাংশে এসে দাড়িয়েছে। নারীর ক্ষমতায়ন ও সচ্ছ্বলতা বেড়েছে এবং সাক্ষরতার হার ৫৩ দশমিত ৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশে উন্নীত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী জানান, সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচির মাধ্যমে ২০২০-২১, ২০২১-২২ এবং ২০২২-২৩ অর্থ-বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে মোট ১ কোটি ৫৫ লাখ ২৯ হাজার ৭৯৯ জন দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীর মধ্যে উপবৃত্তি ও টিউশন ফি বাবদ ৫ হাজার ১৫১ কোটি ৭৯ লক্ষ ১৩ হাজার ৮২০ টাকা মোবাইল ব্যাংকিং ও অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়েছে। সব নিয় প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান বেড়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী জানান, আউট অব স্কুল চিলড্রেন কার্যক্রম (২০১৮-২০২৩): চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৪) এর আওতায় ৮-১৪ বছর বয়সী ১০ লাখ বিদ্যালয় বহির্ভূত শিশু কিশোরকে মৌলিক শিক্ষা দেবার লক্ষ্যে কার্যক্রম নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ১ লাখ শিশুকে মৌলিক শিক্ষা শেষ হয়েছে। অবশিষ্ট ৯ লাখ শিশুর শিক্ষা কার্যক্রম চলছে।

Advertisement
spot_img