আঁখিকে ভর্তি করালেন কোন আক্কেলে, প্রশ্ন ডা. সংযুক্তার

36

সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে নবজাতকসহ মাহবুবা রহমান আঁখির মৃত্যুর দায় নিতে রাজি নন অভিযুক্ত ডাক্তার সংযুক্তা সাহা। তার দাবি, আঁখি তার নিয়মিত রোগী নন। তার অস্ত্রোপচারের সময় তিনি (সংযুক্তা) দেশেই ছিলেন না। এমতাবস্থায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কোন আক্কেলে আঁখিকে ভর্তি করালেন—এমন প্রশ্ন তোলেন এই প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ।

Advertisement
spot_img

আঁখি ও তার সন্তানের মৃত্যু নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যে মঙ্গলবার রাজধানীর পরিবাগে নিজের বাসায় সংবাদ সম্মেলন ডাকেন ডা. সংযুক্তা সাহা। সেন্ট্রাল হাসপাতালে আঁখির অস্ত্রপচারের দশ দিন পর এ বিষয়ে তার বক্তব্য জানা গেল।

ডা. সংযুক্তরা দাবি করেছেন, তাকে ‘না জানিয়ে’ ওই রোগীকে ভর্তি করা হয়েছে। সুতরাং শিশু ও মায়ের মৃত্যুতে তার কোনো দায় ‘ছিল না’।

‘যে মানুষটা দেশেই নাই তার নাম করে কেন রোগী ভর্তি করবেন? এটা কার স্বার্থে? আমি যদি অপারেশন না করি, যদি নাই থাকি, তাহলে রোগী ভর্তি করালেন কোন আক্কেলে? এটা অবশ্যই একটা বেআইনি ব্যবস্থা। এ ঘটনার জন্য একমাত্র দায়ী সেন্ট্রাল হাসপাতাল।’

এদিকে আঁখি ও তার সন্তানের মৃত্যুতে যে সেন্ট্রাল হাসপাতালের অবহেলা ছিল, গত সোমবার তা স্বীকার করে নেন ঢাকার গ্রিনরোডের নামি এ চিকিৎসা কেন্দ্রের জ্যেষ্ঠ উপপরিচালক ডা. এটিএম নজরুল ইসলাম। তবে তিনি প্রথমত সংযুক্তা সাহাকেই দায়ী করেছিলেন।

কী গাফিলতি ছিল, সে প্রশ্নে নজরুল ইসলাম বলেছিলেন, গাফিলতি ছিল প্রথমত ডা. সংযুক্তা সাহার, তারপর ওটির চিকিৎসকদের। কারণ সে সময় তারা সিনিয়র ডাক্তারদের ডাকেনি।

অন্যদিকে সংযুক্তা সাহা তার বাসায় সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন, সিজারিয়ান অপারেশন বন্ধ করার জন্য তিনি যে ‘সামাজিক আন্দোলন’ শুরু করেছেন, সে কারণে একটা পক্ষ তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে ‘এসব কাজ করছে’।

সংযুক্তা দাবি করেন, ওই মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিডিয়া ট্রায়াল হচ্ছে। আমি সবাইকে আহ্বান জানাব, আপনারা এই অনিয়মের সাম্রাজ্যের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।

Advertisement
spot_img