অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্ট নিয়ে নারী এমপির চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

42

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Advertisement
spot_img

চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছেন অস্ট্রেলিয়ার এক নারী আইনপ্রণেতা। গত বৃহস্পতিবার অভিযোগ করেছেন, পার্লামেন্টে যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছেন তিনি। আইনপ্রণেতা লিডিয়া থর্প এ বিষয়ে বিস্তারিত অভিযোগ সামনে এনেছেন। খবর এনডিটিভির।

লিডিয়া থর্প বলেন, নারীদের কাজ করার জন্য অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্ট ‘নিরাপদ জায়গা নয়’। এই আইনপ্রণেতা বলেন, সংসদ চত্বরে আমার সঙ্গে যৌন হেনস্থামূলক কাজ করা হয়েছে।

দেশটির সেনেটে একথা বলার সময় কিছুটা ইমোশনাল হয়ে পড়েন তিনি। লিডিয়া থর্প জানান, নানা ধরনের যৌন মন্তব্য করা হয়, যেভাবে স্পর্শ করা হয় তা ঠিকঠাক নয়। প্রভাবশালী লোকজন নানা ধরনের অযাচিত সুবিধা নিতে চান।

এর আগে লিডিয়া ডেভিড ভ্যান নামে এক সহকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন যে তাকে যৌন হেনস্থা করেছেন। শেষ পর্যন্ত তিনি এই অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন। তবে বৃহস্পতিবার তিনি ডেভিড ভ্যানের বিরুদ্ধে সেই আগের অভিযোগ তোলেন।

ডেভিড কনসার্ভেটিভ লিবারেল পার্টির সদস্য। তবে তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

লিডিয়ার দাবি, যৌন হেনস্থা শব্দটি একেকজনের কাছে এক এক ধরণের হতে পারে। কিন্তু তিনি তার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন। তিনি বলেন, আমাকে অনুসরণ করা হচ্ছিল, আমাকে যেভাবে স্পর্শ করা হয়েছে সেটা ঠিকঠাক নয়। সেইসঙ্গেই তিনি জানান, আমি অফিস ছেড়ে বের হতেও একটা সময় ভয় পাচ্ছিলাম। আমি অত্যন্ত সাবধানে দরজা খুলি। কেউ রয়েছে কি না সেটা ভালো করে দেখে নিই।

তিনি আরও জানান, পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ ছিল যে তিনি যখন সংসদ ভবনে ঢুকতেন তখন তিনি সঙ্গে করে কাউকে নিয়ে ঢুকতেন। এতটাই আতঙ্কিত ছিলেন।

Advertisement
spot_img