বাংলাদেশে আসতে চান মার্টিনেজ

25

আসছে জুনের ফিফা উইন্ডোতে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার। মেসিদের ঢাকা সফরের আলোচনা অনেকদূর এগোলেও মাঠ সংকটের কারণে শেষ পর্যন্ত তা ভেস্তে গেছে। মেসির পুরো দল না আসলেও বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম নায়ক গোলরক্ষক এমিলিয়েনো মার্টিনেজের বাংলাদেশে আসার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

Advertisement
spot_img

বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার প্রতি ভালোবাসা অজানা নয় মার্টিনেজের। কলকাতার খুব সন্নিকটে বাংলাদেশ এটিও জানেন আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক। তাই বাংলাদেশে আসার ইচ্ছা রয়েছে মার্টিনিজের এমনটাই কলকাতা থেকে ঢাকা পোস্টকে জানালেন স্পোর্টস প্রমোটার কোম্পানি শতদ্রু দত্ত এসোসিয়েটসের শতদ্রু দত্ত, ‘সে নিজে থেকেই বাংলাদেশের কথা বলেছে। যেহেতু সে কলকাতা আসছেই তাই আমরাও চাই তার ইচ্ছাপূরণ হোক বাংলাদেশে ঘুরে এসে’।

বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্যের সফর বেশ ব্যয়বহুল। তাছাড়া এর সঙ্গে বাণিজ্য, ব্যবসায়িক চুক্তিসহ নানা আইনও জড়িত। এ নিয়ে কাজ করছেন শতদ্রু দত্ত, ‘আমার পার্টনাররা ইতোমধ্যে কাজ করছে। বাংলাদেশের কয়েকটি কোম্পানির ( বসুন্ধরা, বিকাশ) সঙ্গে আলোচনা চলছে। আমিও বাংলাদেশে আসব শিগগিরই। সব ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহে অফিসিয়াল ষোষণা আসবে’। মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান বিকাশ ইতোমধ্যে আর্জেন্টিনার এশিয়ার মার্কেটিং স্পন্সর হয়েছে।
বাংলাদেশের কয়েকটি কোম্পানি ( বসুন্ধরা, বিকাশ) সঙ্গে আলোচনা চলছে। আমিও বাংলাদেশে আসব শিগগিরই। সব ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহে অফিসিয়াল ষোষণা আসবে।
শতদ্রু দত্ত

প্রাথমিক পরিকল্পনা কলকাতা যাওয়ার আগের দিন বাংলাদেশে নিয়ে আসার, ‘৩ জুলাই ঢাকায় আসতে পারে। সেদিন বাংলাদেশে থাকতে পারে অথবা সেদিন রাতে কলকাতায় নিয়ে আসা হতে পারে। এই বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি। আশা করছি বাংলাদেশের জনগণ বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে দেখতে পারবে এবং সেও বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার উন্মাদনা উপভোগ করবে’।

ভারতের কলকাতায় প্রায় প্রতি বছরই বিশ্বের অনেক বড় ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব আসেন। পেলে, ম্যারাডোনা, ভালদারামোকে কলকাতায় এনেছিলেন শতদ্রু দত্ত এসোসিয়েট নামের স্পোর্টস প্রোমাটার কোম্পানি। এরাই এবার মার্টিনেজকে আনছেন কলকাতায়। ৪-৫ জুলাই কলকাতায় অবস্থান করবেন মার্টিনেজ।

Advertisement
spot_img