সংসদ সদস্যর ঘরে চুরি, টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট

7

জয়পুরহাটে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য মাহফুজা সুলতানা মলির বাসায় দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (৩ জুন) সকালে থানা-পুলিশ ও জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

Advertisement
spot_img

এর আগে গতকাল রবিবার রাতে আক্কেলপুর পৌর শহরের পূর্ব আমুট্ট মহল্লার বাসায় এ চুরির ঘটনা ঘটে। গ্রিল ভেঙে বাসার ভেতরে প্রবেশ করে দ্বিতীয় তলার তিনটি কক্ষ ও নিচতলার দুটি কক্ষে ঢুকে আসবাবপত্র ভেঙে তছনছ করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে চোর চক্র।

পুলিশ ও সংসদ সদস্যের স্বজনরা জানান, মাহফুজা সুলতানা ঢাকায় থাকেন। তিনি তার এক প্রতিবেশীকে বাসা দেখভালের দায়িত্বে দিয়েছেন। রবিবার রাতে ওই প্রতিবেশীর ছেলে ও ছেলের বউ সংসদ সদস্য মাহফুজা সুলতানার বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষে ছিলেন। সকালে তারা স্বামী-স্ত্রী ঘুম থেকে উঠে বাইরে ওয়াশরুমে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তখন বাইরে থেকে তাদের ঘরের দরজা আটকানো দেখে তারা বিকল্প দরজা দিয়ে বাইরে এসে দেখেন, নিচতলার ঘরের দরজার ছিটকিনি ভাঙা ও ভেতরে আসবাবপত্র তছনছ অবস্থায় রয়েছে। পরে তারা প্রতিবেশী ও স্বজনদের খবর দেন। প্রতিবেশী ও স্বজনেরা এসে দ্বিতীয় তলার গিয়ে তিনটি কক্ষ ও নিচতলার দুটি কক্ষের আসবাবপত্র ভাঙা ও জিনিসপত্র মেঝেতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখেন। তারা মুঠোফোনে ভিডিও কলের মাধ্যমে সংসদ সদস্য মাহফুজা সুলতানাকে তার বাসার প্রতিটি কক্ষ ঘুরে দেখান। মাহফুজা সুলতানা তাদের নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার খোয়া যাওয়ার কথা জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে মাহফুজা সুলতানা বলেন, চোরেরা নিচতলার দুটি ও দ্বিতীয় তলার তিনটি কক্ষের আসবাবপত্র তছনছ করেছে। বাসায় ল্যাপটপ, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান অনেক জিনিসপত্র ছিল। বাসা থেকে কী জিনিস চুরি হয়েছে, তা এখন নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। আমার ছেলে বাসায় যাচ্ছে। তিনি বাসায় গিয়ে দেখে আইনি পদক্ষেপ নেবেন।

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নয়ন হোসেন বলেন, চুরির ঘটনায় এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। তবে পুলিশ রহস্য উদ্‌ঘাটনে তৎপরতা চালাচ্ছে।

Advertisement
spot_img