পহেলা বৈশাখ ১৪৩১ উদ্যাপন উপলক্ষ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত কর্মসূচি

68

‘এই বৈশাখে বৈশি^ক বৈভবে’ এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে বাঙালি জাতির ঐতিহ্যবাহী বর্ষবরণ উৎসব পহেলা বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (১৪ এপ্রিল ২০২৪) ‘বাংলা নববর্ষ ১৪৩১’ উৎসবমুখর পরিবেশে উদ্যাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। গ্রাম বাংলার ইতিহাস ও ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন বর্ণাঢ্য আয়োজনের মাধ্যমে দিনব্যাপি অনুষ্ঠেয় এ বর্ষবরণ উৎসবে সভাপতিত্ব করবেন কেন্দ্রীয় উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ আবু তাহের। নববর্ষের উক্ত উৎসবে চবি মাননীয় উপ-উপাচার্যদ্বয় উপস্থিত থাকবেন।

Advertisement
spot_img

অনুষ্ঠানমালায় সকাল ১০:৩০ টায় চবি স্মরণ চত্বর থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা শুরু হয়ে চবি জারুলতলায় এসে শেষ হবে। অতঃপর বেলা ১১:০০ টায় চবি জারুলতলায় বৈশাখী মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় সংগীত, বৈশাখের গান ও নৃত্য অনুষ্ঠান। বেলা ১১:৩০ টায় থেকে দুপুর ১২:০০ টায় অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা। অনুষ্ঠানে মাননীয় উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যদ্বয় ‘শুভ নববর্ষ ১৪৩১’ উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন। দুপুর ১২:০১ টা থেকে ১২:৩০ টায় গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী বলী খেলা (মুক্ত মঞ্চ), কাবাডি খেলা (বুদ্ধিজীবী চত্বর) এবং বউচি খেলা (চাকসু প্রাঙ্গন) অনুষ্ঠিত হবে। দুপুর ১২:৩১ টা থেকে (দুপুর ১:১৬ টা থেকে দুপুর ২:০০ টা পর্যন্ত থাকবে বিরতি) বিকাল ৩:৩০ টায় জারুলতলার বৈশাখী মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। সবশেষে বিকাল ৩:৩১ টা থেকে ৫:০০ টা পর্যন্ত ‘বে অব বেঙ্গল’ ব্যান্ড দলের মনোজ্ঞ পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হবে। চবি আয়োজিত বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে সম্মানিত শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের সুবিধার্থে উক্ত দিন সকাল ৮:৪৫ টায় একটি বাস নিউমার্কেট থেকে এবং অপর একটি বাস একইসময়ে আগ্রাবাদ থেকে ছেড়ে যথাক্রমে ১ ও ২ নং রুট অনুসরণ করে ক্যাম্পাসে পৌঁছবে এবং অনুষ্ঠান শেষে যথারীতি ফিরে যাবে। সার্বজনীন প্রাণের এ উৎসবে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

চবি উপাচার্যের সাথে সনাতন ধর্ম পরিষদের নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ
======
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সনাতন ধর্ম পরিষদের নেতৃবৃন্দ ০৪ এপ্রিল ২০২৪ দুপুর ১:৩০ টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ আবু তাহের এর সাথে উপাচার্যের অফিস কক্ষে সৌজন্য সাক্ষাত করেন এবং ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। একইসাথে নবনিযুক্ত  উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) প্রফেসর ড. মোঃ সেকান্দর চৌধুরীকেও শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। এসময় চবি  উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) প্রফেসর বেনু কুমার দে, চবি সনাতন ধর্ম পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. তাপসী ঘোষ রায়, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. সজীব কুমার ঘোষ, চবি কেন্দ্রীয় মন্দির কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. অঞ্জন কুমার চৌধুরীসহ পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement
spot_img