কবে থামবে বৃষ্টি, জানালো আবহাওয়া অফিস

36
কয়েক দিন ধরেই সারাদেশে বৃষ্টি হচ্ছে। রাজধানীতে শুক্রবার (৪ আগস্ট) সকাল থেকেই টানা বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টিপাত দেশের অনেক এলাকায় আরও দুদিন হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। উপকূলীয় এলাকাসহ বেশ কিছু জেলার ওপর দিয়ে বৃষ্টির সঙ্গে বইতে পারে ঝড়ো হাওয়া।

এ কারণে দেশের চার সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর এবং বেশিরভাগ নদীবন্দরকে ২ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। সেইসঙ্গে ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রামে পাহাড় ধসের আশঙ্কাও প্রকাশ করা হয়েছে।

Advertisement
spot_img

গতকাল রোববার আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় হয়ে ওঠার কারণে সারা দেশেই বৃষ্টি হচ্ছে। সবসময় মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকে না। আগামী দুদিন এই আবহাওয়া থাকতে পারে বলেও তিনি জানান।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, মৌসুমি বায়ুর অক্ষ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি থেকে প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে।

আবহাওয়ার সতর্ক বার্তায় বলা হয়, সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চরণশীল মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এবং আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার) থেকে অতি ভারী (৮৯ মিলিমিটার বা তারও বেশি) বর্ষণ হতে পারে।

Advertisement
spot_img